ঈশ্বরদীতে ৮৮ ছাগলকে পুড়িয়ে হত্যা করল দুর্বৃত্তরা

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঈশ্বরদী ডটকম// ঈশ্বরদীর বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা নিউ এরা ফাউন্ডেশনের চরমিরকামারিতে ছাগলের ব্রিডিং খামারে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে পুড়ে ৮৮টি ছাগলের মৃত্যু হয়েছে।

রোববার (১৭ ডিসেম্বর) ভোরে ঈশ্বরদীর ছলিমপুর ইউনিয়নের মিরকামারী বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা নিউ এরা ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়ে নাশকতার উদ্দেশ্যে ছাগলের ব্রিডিং খামারে আগুন দেয়ায় এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, খামারের অভ্যন্তরে ৮৮টি ছাগল পুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। পুড়ে গেছে কাঠের তৈরি খামারের পাটাতন ও সিলিং। খামারের পূর্বপাশে তারের বেড়া কেটে ফেলা হয়েছে। সেখান দিয়েই দুর্বৃত্তরা এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটাতে পারে। ঈশ্বরদী বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড পিডিবির কর্মকর্তারা পরিদর্শন করে জানিয়েছেন শর্ট সার্কিট থেকে ছাগল খামারে আগুন লাগেনি।

খবর পেয়ে পাবনার সহকারী পুলিশ সুপার (ঈশ্বরদী সার্কেল) জহুরুল হক, ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিম উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

নিউ এরা ফাউন্ডেশনের সমন্বয়ক মোস্তাক আহমেদ কিরন জানান, ভোরে খামারের পাশের ঘরে থাকা আশার উদ্দিন আগুন জ্বলতে দেখে চিৎকার দেন। এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। ততক্ষণে খামারের মধ্যে থাকা ৮৮টি ছাগল পুড়ে মারা যায়।

এ ব্যাপারে নিউ এরা ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক মন্জুর রহমান বিশ্বাস বলেন, এ কেমন শত্রুতা ! শত্রুতা করে এভাবে জীব হত্যা, অমানুষ ছাড়া কেউ করতে পারে না। নাশকতার উদ্দেশ্যে দুর্বৃত্তরা আমার ছাগলের খামারে আগুন দিয়ে ৮৮টি ছাগল পুড়িয়ে মেরেছে। এ ফাউন্ডেশন নারীদের ভাগ্যন্নোয়নে কাজ করে যাচ্ছে। আধুনিক ছাগল খামার করে নারীদের ছাগল পালনে উৎসাহিত করা হয়। যারা আগুন দিয়ে ছাগলগুলো পুড়িয়ে মেরেছে তারা মানুষ নয় অমানুষ। শক্রতাবশত ছাগলগুলোকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে কারা জড়িত থাকতে পারে তা তিনি বলতে পারেননি।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিম উদ্দিন বলেন, দুর্বৃত্তরা আগুন ধরানোর জন্য পেট্রোল অথবা গান পাউডার জাতীয় পদার্থ ব্যাবহার করে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। অভিযোগ দিলে দ্রুত তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।