ঈশ্বরদীতে রাস্তার পাশে আর্বজনারস্তুপ, দূর্ভোগে জনগণ

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঈশ্বরদী ডটকম// পাবনা-ঈশ্বরদী মহাসড়কের ব্যস্ততম অংশের পাশে আর্বজনারস্তুপে দূষণ আর দুর্ভোগের শিকার সাধারণ জনগণ।

পাবনা-ঈশ্বরদী মহাসড়কের ঈশ্বরদী উপজেলার হারুখালি মাঠের পাশ দিয়ে প্রতিদিন চলাচল করে অসংখ্য ছোট-বড় যানবাহন ও যাত্রী সাধারণ। নিজ নিজ প্রয়োজনে ছুটতে হয় ঈশ্বরদী ও পাবনা অভিমুখে। ঈশ্বরদী ও পাবনার মহাসড়কের জনগুরুত্বপূর্ণ এই হারুখালি মাঠে নিয়মিত ফেলা হচ্ছে পৌরসভার সকল ময়লা। ফলে ছড়াচ্ছে দূর্গন্ধ, হচ্ছে পরিবেশ দূষণ।

আর দূষণের শিকার হচ্ছে যাত্রী সাধারণ। দীর্ঘদিন থেকে ঈশ্বরদী পৌরসভা কর্তৃক ময়লা ফেলায় পরিণত হয়েছে আবর্জনার স্তুপে। আর আবর্জনার দূর্গন্ধে রোগাক্রান্ত হচ্ছে পাশ্ববর্তী মল্লিক এগ্রো ফুড ইন্ডাস্ট্রিজসহ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও আশেপাশে বসবাসকারী জনসাধারণ।

দীর্ঘ দিন বলার পরও কোন ব্যবস্থা হয়নি বলে জানান স্থানীয়রা। ফলে চলাচলকারীদের নাকে রুমাল ব্যবহার করে করতে হয় দৈনন্দিন কাজ বা চলাচল। আর্বজনা নিষ্কাষনের স্থানটি সাধারণত জনসাধারণের লোকালয় থেকে দূরে করতে হয় কিন্তু ঈশ্বরদী পৌরসভা থেকে তা না করায় এ দূর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে স্থানীয় ও চলাচলকারী সাধারণকে। স্থানীয় অটোচালক আশুতোষ কুন্ডু জানান, প্রতিদিন যাত্রী নিয়ে একজন চালককে ১০/১২ বার ঈশ্বরদীতে যেতে হয়। বার বার চলাচল করতে হারুখালি মাঠের নিকটে গেলে দূর্গন্ধে বমি চলে আসে ।

দূর্গন্ধ থেকে মুক্তি পেতে অনেক সময় দম বন্ধ হয়ে যায়। পৌরসভা থেকে কার্যকর ব্যবস্থা নিলে এই দূর্ভোগ থেকে মুক্তি পেত জন সাধারণ। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পৌরসভা আর্বজনা নিষ্কাষন অতিরিক্ত কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন জনি জানান,পৌরসভা কর্তৃক ময়লা-আবর্জনা ফেলার নির্দিষ্ট স্থান থাকলেও তা ব্যবহারের অনুপযোগী থাকায় হারুখালি মাঠে ময়লা-আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। নির্দিষ্ট স্থান ফতেমোহম্মদপুর ময়লা ফেলার উপযোগী হলে সেখানে ময়লা ফেলা হবে।